মঙ্গলবার দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী,বুধবার মোদী-মমতা সাক্ষাৎ

 

খবরএইসময়,ওয়েব ডেস্ক, ১৬ই সেপ্টেম্বরঃ  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করতে আগামিকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার দিল্লি যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী বুধবার নয়াদিল্লিতে মোদীর সঙ্গে মমতার সাক্ষাতের কথা রয়েছে বলে সংবাদসংস্থা সুত্রের খবর। সিবিআই যখন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের নাগাল পেতে মরিয়া, ঠিক সে সময়ই মোদী-মমতা সাক্ষাৎ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহলে্র একাংশ।

কিন্তু কেন দিল্লি সফর?

সূত্রের খবর অনুযায়ী,রাজ্যের বিভিন্ন দাবিদাওয়া এবং উন্নয়নমূলক কাজ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করতেই রাজধানী যাচ্ছেন মমতা।তবে তৃণমূলের সংসদীয় দলের সঙ্গে বৈঠক করার পর অন্যান্য বিরোধী দলের নেতাদের সঙ্গেও দেখা করতে পারেন বলে জানা যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকে একাধিকবার মোদীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলায় নির্বাচনী প্রচারে এসে মমতাকেও আক্রমণ করতে ছাড়েননি মোদী। উনিশের নির্বাচনী প্রচারে মোদী-মমতা বাগযুদ্ধে সরগরম ছিল রাজ্য রাজনীতি। ভোট পরবর্তী সময়েও মোদী বাহিনীর বিরুদ্ধে আক্রমণের তীব্রতা কমাননি তৃণমূলনেত্রী। সম্প্রতি এনআরসি ইস্যুতে বিরোধিতা জানিয়ে সোচ্চার হয়েছেন মমতা। তৃণমূল সুপ্রিমো বলেছেন, ‘‘আরেকটা বঙ্গভঙ্গ করার চেষ্টা করবেন না। বাংলাকে যাঁরা হিংসা করেন, তাঁরা জেনে রাখুন, বাংলা মাথা নত করবে না। আগুন নিয়ে খেলবেন না। আমরা সবাই রয়েছি দেশকে রক্ষা করার জন্য। আরেকবার ভারত ভাগ করতে দেব না’’। অন্যদিকে, আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবসে  বিজেপিকে বিঁধে মমতা টুইটারে লিখেছেন, ”আসুন আমরা সকলে আমাদের দেশের সাংবিধানিক পরিকাঠামোকে অক্ষুণ্ণ রাখার অঙ্গীকার করি। এই ‘সুপার এমারজেন্সি’-র জমানায় মানুষের সাংবিধানিক অধিকার ও স্বাধীনতা রক্ষার জন্য যা যা করতে হবে আমরা তা অবশ্যই করব।” এই আবহে মোদীর সঙ্গে মমতার সাক্ষাৎ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।