প্লাস্টিক ব্যবহারে এখনই নিষেধাজ্ঞা নয়, ঘোষণায় বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে সব মহলেই

 

মদনমোহন সামন্ত,02 অক্টোবর,কলকাতা: সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহারে এখনই নিষেধাজ্ঞা নয়। আপাতত সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জোর দেওয়া হবে। গান্ধী-শাস্ত্রী জয়ন্তীতে এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্র সরকার। অর্থাৎ আপামর জনসাধারণের জন্য আপাতত সাময়িক ছাড় প্লাস্টিকজাত দ্রব্য ব্যবহারে। যদিও আগে থেকেই একের পর এক নানা নির্দেশনামা মারফৎ প্লাস্টিকজাত দ্রব্য ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করছিল সরকার, তবুও তা বলবৎ করা যায়নি নানা কারণে। আজ মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন থেকে প্লাস্টিক ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে বলে সম্প্রতি ঘোষণা করা হয়েছিল। অথচ, আজ কেন্দ্র সূত্রে জানা গিয়েছে , এখনই নয়, 2022 সালের মধ্যে প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করার উদ্যোগ নেওয়া হবে। এদিকে সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক কোনগুলিকে বলা হবে এ নিয়ে জনমানসে চরম বিভ্রান্তি দেখা দিয়েছে । অন্যদিকে প্লাস্টিকের বিকল্প নিয়েও কোনও সুনির্দিষ্ট দিশা পাওয়া যায়নি। নানা রকম বিকল্প নিয়ে গবেষণা চললেও সর্বজনগ্রাহ্য বা সর্বক্ষেত্রে ব্যবহারোপযোগী বিকল্পের সন্ধান এখনও চলেছে। কার্যকরী বিকল্প সন্ধানে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় খাদ্য ও উপভোক্তা মন্ত্রী রামবিলাস পাশোয়ান প্লাস্টিক বোতলের পরিবর্তে কাচের বোতলে জল পানের প্রস্তাব দিলেও বাস্তব প্রয়োগের ক্ষেত্রে অসুবিধা বিস্তর। এরকম পরিস্থিতিতে রাজ্যের পরিবেশ মন্ত্রকের সচিব জানিয়েছেন, সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহারে এখনও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়নি। তবে সচেতনতা বাড়ানোর পদক্ষেপ নিতে হবে। সরকারি অফিসে প্লাস্টিক বোতল, চামচ, থালা ব্যবহার বন্ধ করতে প্রশাসন কঠোরতা নিয়ে প্রাথমিক পদক্ষেপ নিতে চাইছে। সব মিলিয়ে এক বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি! যেন চোরকে বলা চুরি করতে আর গৃহস্থকে বলা জেগে থাকতে। ঘোলা জলে শিব ঠাকুরের আপন দেশে আইন মেনে বিড়ালের গলায় ঘন্টি বাঁধার প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো বেআব্রু হতে আর বাকি থাকছে কোথায়!